ক্যাটাগরিসমূহ
Writer Choice

‘পরিশ্রম সৌভাগ্যের চাবিকাঠি’


অনেক দূরের একটি পাখি দেখিয়ে দুজনকে দুটি
রাইফেল দেয়া হল।
.
প্রথমজন রাইফেল তাক করার পর তাকে জিজ্ঞাসা
করা হল, তুমি রাইফেলের ল্যান্সে কী দেখতে
পাচ্ছো ?
.
সে জবাব দিল, পাখিটিকে দেখতে পাচ্ছি।
আর কী দেখতে পাচ্ছো ?
দেখতে পাচ্ছি পাখিটি একটি গাছের উপরে বসে
আছে। গাছের কিছু ডাল; পাতা দেখতে পাচ্ছি।
আর ?
.
ক্যামেরার শেষ মাথায় আকাশ দেখতে পাচ্ছি। আকাশ
মেঘলা।
দ্বিতীয়জনকেও একই প্রশ্ন করা হল। তার জবাব ছিল,
রাইফেলের ল্যান্সে পাখিটির মাথা ছাড়া সে আর
কিছুই দেখতে পাচ্ছে না।
.
আমরা বেশিরভাগ মানুষ প্রথম মানুষটির মত।
আমাদের জীবনের নিশানা অস্পষ্ট। মূল লক্ষ্যবস্তুর
আশে পাশে আরও অনেক ভিউ চলে আসে। শিকারির
ল্যান্সে শুধু পাখিটিকে দরকার; মেঘলা আকাশ না।
.
মারিও কুওমোর কথা মনে পড়ছে। মাত্র দুটি উপায়ে
সফল হওয়া যায়! একটি হচ্ছে সঠিক লক্ষ্য নির্ধারণ
করা আর দ্বিতীয়টি হচ্ছে, সেই লক্ষ্যে কাজ করে
যাওয়া।
.
‘ সঠিক লক্ষ্য’ শব্দ দুটির দিকে ভাল ভাবে তাকান।
আপনি সব কাজ করতে পারবেন না। আপনাকে দিয়ে
সব কাজ হবে না। তার মানে এই না যে আপনি
পরাজিত।
.
‘পরিশ্রম সৌভাগ্যের চাবিকাঠি’ কথাটি আসলে
পুরোপুরি ঠিক না। পরিশ্রম কখনো কখনো পণ্ডশ্রম ও
হয়।
ডারউইন যদি ফুটবল প্লেয়ার হবার চেষ্টা করত
তাহলে কেমন হত ? মাহাত্না গান্ধী দিন রাত
সঙ্গীত চর্চা করলে কী ভুলটা হত ভাবা যায় ?
রবীন্দ্রনাথ কিন্তু ব্যারিস্টার হতে গিয়েও পারেন
নি। নিজেকে বোঝার জন্য সময় নিন।
.
পার্কের বেঞ্চে বসে বসে বাদাম খেয়ে জীবন পার
করে দেবার জন্য আপনার জন্ম হয়নি। অনেক হেরেছি
এখন চিত হয়ে বালিশ ছাড়া ফ্লোরে শুয়ে শুয়ে
হাউমাউ করার জন্য আপনাকে সৃষ্টি করা হয়নি।
আপনার ভেতরে যা কিছু আছে বিশ্বাস করুন সেটা আর
কারো ভেতরে নেই।
.
…একটা কাগজ কলম নিয়ে নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর
লিখে ফেলুন।
১- আপনি কেন বেঁচে আছেন।
২- লাইফে কী করতে চান ?
৩- কেন করতে চান ?
৪- সেটা করতে হলে আপনাকে কী করতে হবে ?
৫- কেন আপনি ব্যর্থ হবেন না ?
.
শিব খেরার একটি বই আমি অনেক দিন আমার সাথে
রেখে দিয়েছিলাম। বইটি পড়ার জন্য না; শুধু মাত্র
বইটির প্রচ্ছেদের জন্য। সেখানে বড় বড় করে লেখা
আছে ‘ বিজয়ীরা ভিন্ন ধরনের কিছু করে না, তারা
একই কাজ ভিন্নভাবে করে’
.
আমি আমার আশে পাশের সফল এবং ব্যর্থ মানুষের
মাঝে একটাই পার্থক্য দেখি। একদল লেগে থাকে।
আকড়ে ধরে রাখে। কামড় দিয়ে ঝুলে থাকে। আরেকদল
ছেড়ে দেয়। দাড়িয়ে যায়। পালিয়ে যায়।
টপ করে হাত ফসকে পরে গেছে ? মাত্র এক
নাম্বারের জন্য মিস হয়ে গেছে ? একদম
দ্বারপ্রান্তে এসে ফলাফল জিরো ? কোন সমস্যা
নাই।…
.
লেগে থাকুন… লেগে থাকুন। আঠার মত লেগে থাকুন।
হেরে গেছেন ? বার বার ? অনেকবার ? এখন কী
করবেন ? লেগে থাকুন… ঝাপটে ধরে ঝুলে থাকুন।
এডিসনের একটি কথা আমাকে খুব অনুপ্রাণিত করে। –
‘ আমি বলবনা আমি ১০০০ বার হেরেছি, আমি বলব যে
আমি হারার ১০০০ টি কারণ বের করেছি’
.
কেন আপনি পারবেন না ? আপনার আইকিউ লেভেল
অনেক কম ? আপনি সব সময় যুক্তি তর্কে হেরে যান ?
কিছু একটা করে চারপাশে তাক লাগিয়ে দেবার মত
ক্ষমতা আসলে আপনার নেই ?

মন্তব্য করুন

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.